মেনু নির্বাচন করুন

রাজবাড়ী

 দিনাজপুর শহরের ২.৫ কিঃ মিঃ উত্তর পূর্ব উপকণ্ঠে ৪শত বছরের পুরাতন রাজবাড়ী দিনাজপুরের অন্যতম প্রতণ-তাত্বিক সম্পদ। রাজবাড়ীর মুল ইমারতটি সংলগ্ণ একটি হিন্দু মন্দির ছিল। এখানে যথারীতি পুজা অর্চনা হয়। কোচ বিহারের ইতিহাস গ্রমেহ খান চৌধুরী আমানত উল্লাহ হতে একটি জনশ্রুতি আছে যে, কামরতপের রাজা দেবেশ্বর এর বংশজাত রাজা পৃথী এর সময় মন্দিরটি নির্মিত হয়। বহু সংখ্যক প্রাসাদ, প্রকোষ্ট, মহল দেউড়ী, চত্বর, গবাঙ্গ ও অলিগলি সম্বন্বিত রাজবাড়ীটি প্রধানত তিনটি মহালে বিভওু ছিল আয়না মহল, রানী মহল ও ঠাকুর মহল। এছাড়াও প্রাসাদের অভ্যমতরে রাজ সেরেসতা, পুজা মন্ডপ, দুটি দীঘি, ফুল বাগান, চিড়িযাখানা, টেনিস কোট ও কুমার মহল অবসিহত ছিল। বর্তমানে সামমিতক যুগের এক বিরাট বাড়ীর অগনিত ধন সম্পদ ধবংস, অপচয় ও অপহূত হয়েউেহা এক ভুতুড়ে বাড়ীতে পর্যবসিত হতে সুখের বিষয় এই যে, প্রতণতত্ব বিভাগ ইতোমধ্যে বাড়ীর সংস্কার কাজে হাত দিয়েছে।

কিভাবে যাওয়া যায়:

দিনাজপুর সদর উপজেলা হতে রিক্সা বা ইজি বাইক এ করে যাওয়া যায় । ভাড়া ২০-২৫ টাকা নেওয়া হয়ে থাকে ।


Share with :

Facebook Twitter